ছবির পোস্টারে হতাশ ভক্তরা, দিঘী বললেন আলহামদুলিল্লাহ

শিশুশিল্পী হিসেবে বড় পর্দায় পা রাখেন অভিনেত্রী প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি। তবে তা শিশুশিল্পী হিসেবে।

দীঘি এখন আর শিশুশিল্পী নেই, দীর্ঘ বিরতি কাটিয়ে নায়িকা হিসেবে চলচ্চিত্রে নাম লেখিয়েছেন। এরই মধ্যে দুটি সিনেমার কাজও শেষ করেছেন তিনি।

দীঘি অভিনীত ‘তুমি আছ তুমি নেই’ সিনেমাটি আগামী ১২ মার্চ সারা দেশে মুক্তি পাবে। এটি পরিচালনা করেছেন দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। এতে দিঘীর সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন আসিফ ইমরোজ। মুক্তি উপলক্ষে এ সিনেমার দুটি পোস্টার প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু প্রকাশিত পোস্টার দেখে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হতাশা ব্যক্ত করছেন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা।

বিষয়টি নিয়ে নানারকম নেতিবাচক লেখা ঘুরে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। অনেকেই বলছেন, ডিজিটাল এই সময়ে এ ধরনের পোস্টার দর্শকদের হতাশ করছে। জিয়াউদ্দিন আলম নামে একজন লিখেছেন, ‘নাটকের পোস্টারও এর থেকে অনেক ভালো হয়। পরিচালক ও প্রযোজকের রুচি খুব খারাপ।’

মোহাম্মদ ইলিয়াস ফারুক লিখেছেন, ‘পোস্টার আরো ভালো আশা করছিলাম।’ শুধু তাই নয়, নায়িকা হিসেবে দিঘীর অভিষেক নিয়ে কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন। আবার অনেকেই পোস্টার দেখে সিনেমার মান নিয়ে প্রশ্ন ছুড়েছেন।

শুধু নেটিজেনরা নয়, পোস্টার দেখে হতাশা ব্যক্ত করেছেন দিঘী নিজেও। এ অভিনেত্রী বলেন, ‘প্রত্যেক জিনিসের ভালো-খারাপ দুই দিকই আছে। তবে পোস্টার নিয়ে আমার প্রত্যাশা আরো ভালো কিছু ছিল। এখন তো আর কিছু করার নেই, যা হয়েছে আল্লহামদুল্লিলাহ।’

কাজী হায়াতের ‘কাবুলীওয়ালা’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন দিঘী। এরপর ‘চাচ্চু’, ‘দাদীমা’, ‘এক টাকার বউ’সহ বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি। সর্বশেষ ২০১২ সালে মনতাজুর রহমান আকবরের ‘ছোট্ট সংসার’ সিনেমায় শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় করেন দিঘী।

দীর্ঘ আট বছর পর নায়িকা হয়ে দিঘী পর্দায় ফিরছেন। তার শুরুটা বেশ ভালো হলেও কয়েকদিন না যেতেই দেশের বড় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার পাঁচটি সিনেমা থেকে বাদ পড়েন তিনি। অন্যদিকে অনন্ত জলিল তার সিনেমায় দিঘীকে নিতে চেয়েও শেষ পর্যন্ত মুখ ফিরিয়ে নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *