আল-জাজিরায় সাক্ষাৎকার দেওয়া সেই মুন্না বলছেন এখন ভিন্ন কথা

কাতারভিত্তিক টিভি চ্যানেল আল-জাজিরা উদ্দেশ্যমূলকভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জড়িয়ে প্রতিবেদন প্রচার করেছে বলে জানিয়েছেন ওই রিপোর্টে সাক্ষাৎকার দেওয়া মেহেদি হাসান মুন্না। এদিকে, আল-জাজিরার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার কথা ভাবছে সরকার। সরকারের এমন মনোভাবকে স্বাগত জানিয়েছেন আইন বিশেষজ্ঞরা। কী প্রক্রিয়ায়, কোন আইনে মামলাটি হবে সে বিষয়ে কথা বলেছেন তারা। সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র এক আইনজীবী জানান, বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ স্পর্শকাতর বিষয়ে প্রতিবেদন প্রচার করে আন্তর্জাতিক অপরাধ করেছে আল-জাজিরা। তারা বলছেন, টিভি চ্যানেল ও প্রতিবেদন তৈরিতে সহযোগিতাকারীদের বিরুদ্ধে দেশে-বিদেশে

চল্লিশোর্ধ্ব না’রীরাই ছিল বেলালের টা’র্গেট

চল্লিশোর্ধ্ব না’রীরাই ছিল ওর টা’র্গেট। তবে যাদের স্বামী বিদেশে থাকেন এবং বিত্তশালী, তাদের প্রতি ছিল তার বিশেষ আগ্রহ। নানা কৌশলে ওই সব না’রীকে একপর্যায়ে প্রেমের ফাঁ’দে ফেলত মো. বেলাল হোসেন নামের এই ব্যক্তি। দেখা করার কথা বলে গো’পনে তাদের অ’ন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি তুলে রাখত সে। পরবর্তী সময়ে এসব ছবি পাঠাত ওই ভু’ক্তভো;গীদের ‘ফেসবুক’ মেসেঞ্জারে। দফায় দফায় তাদের কাছ থেকে আদায় করত মোটা অঙ্কের অর্থ। অবশে’ষে এক ভু’ক্তভো’গীর অ’ভিযোগের ভিত্তিতে বেলালকে গ্রে’ফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা

বিসিএস ক্যাডার পেয়েই সুমি ভুলে গেল সেই বয়ফ্রেন্ডের কথা

মন দেয়া নেয়ার শুরুটা হয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কোচিং চলাকালে। সুমি আর আমি একই কোচিংয়ে ভর্তি হয়েছিলাম। পড়াশোনায় প্রতিযোগিতা থাকলেও পরীক্ষার সময় সহযোগিতমূলক আচরণ ছিল আমাদের মাঝে। শিট ফটোকপি করে দেয়া, বই কেনার সময় একসঙ্গে ঘুরতে যাওয়া, ফোনে পড়াশোনার খবর নেয়া এভাবেই কাছে আশা শুরু। বই কেনার প্রয়োজনে প্রায়ই নীলক্ষেতে যেতে হত। আমরা শাহবাগ থেকে রিকশায় করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মধ্য দিয়ে নীলক্ষেতে যেতাম। ফেরার পথে টিএসসিতে সময় কাটাতাম মাঝে মাঝে। ফুচকা খেতে খেতে পড়াশোনার বাইরে

হাত নেই, পা দিয়ে বিমান চালিয়েই গিনেস বুকে নাম

তিনিই হয়তো পৃথিবীর মধ্যে একজন; যিনি পা দিয়ে বিমান চালাতে পারদর্শী। জন্ম থেকেই ‘বিকলা’ঙ্গ তিনি। দুই হাত ছাড়াই জন্মগ্রহণ করেছেন। জীবনে অনেক যু’দ্ধ করে আ’ত্মবিশ্বা’সের সাহায্যে লক্ষ্যে পৌঁছেছেন এই নারী। শুধু বিমান চালাতেই নয় বরং কি-বোর্ড টাইপিং, পিয়ানো বাজানো, সাঁতার কা’টা, ফোন ব্যবহার সবই পারেন তিনি। এমনকি পা দিয়ে নিজের ব্যক্তিগত বস কাজই করেন প্রতিভাবান এই নারী। তার নাম জেসিকা কক্স। ছোট থেকেই তিনি নিজেকে ভবি’ষ্যতের জন্য প্রস্তুত করেছেন। মাত্র ৩ বছর বয়স থেকে জেসিকা

গর্ভবতী মায়ের টিকা সম্পর্কে ৫টি ভ্যাক্সিন, কখন কোনটা নিবেন জানা আছে কি?

মায়ের অসুস্থতা শিশুর বৃদ্ধি ও বিকাশকে বাধাগ্রস্ত করতে পারে। যেমন গর্ভবতী মায়েদের রুবেলার ইনফেকশন হলে সন্তান জন্মগত ত্রুটি নিয়ে জন্মগ্রহণ করতে পারে, এমনকি জন্মের পূর্বেও সন্তানের মৃত্যু হতে পারে। রুবেলা আক্রান্ত মায়ের গর্ভে জন্ম নেওয়া শিশুর এই ত্রুটি স্থায়ী। তাই পরবর্তী সময়ে শিশুটির দুঃসহ যন্ত্রণা ভোগ করতে হয়। গর্ভবতী হওয়ার আগে রক্ত পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন আপনার রুবেলা প্রতিরোধের ক্ষমতা আছে কি না। আমাদের দেশে অধিকাংশ নারীই নয় মাস বয়সেই হামের সঙ্গে রুবেলার টিকার

আনন্দ ভাগ করে নিতে নীলাঞ্জন-ইমনের বিয়েতে সৃজিত-মিথিলা

ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত সংগীতশিল্পী ইমন চক্রবর্তী বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন। তার দীর্ঘ দিনের প্রেমিক নীলাঞ্জন ঘোষের সঙ্গেই সাতপাকে বাঁধা পড়লেন তিনি। গত ৩১ জানুয়ারি রেজিস্ট্রি বিয়ে করেন তারা। মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) বাঙ্গুর গার্ডেনের জেঠিয়া বাড়িতে ঘটা করে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন এই দম্পতি। এদিন লাল বেনারসি আর সোনার গহনায় সেজেছিলেন ইমন। অন্যদিকে নীলাঞ্জন পরেছিলেন পাঞ্জাবি। পুরোপুরি বাঙালি সাজে দেখা গেছে এই যুগলকে। নববধূর ঠোঁটে লেগেছিল চেনা হাসি। সেই হাসির ছোঁয়া ছায়া ফেলেছিল নীলাঞ্জনের মনে! একই

বিসিএস পুলিশ ক্যাডার হয়ে ইতিহাস গড়লেন আপন দুই বোন

হবিগঞ্জের বাহুবলের ছাত্রী নাসরিন আক্তার ও শিরিন আক্তার। এসএসসি-এইচএসসি শেষ করে তারা চলে আসেন ঢাকায়। ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। দুই বোনই ওই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স ও মাস্টার্স করেছেন। বড়বোন নাসরিন পড়েছেন ইতিহাস বিভাগে, আর ছোটবোন শিরিন রাষ্ট্রবিজ্ঞানে। আকবর হোসেন ও জাহানারা বেগম দম্পতির দুই অপরাজিতার সাফল্য কাহিনী এখন এলাকার মানুষের মুখে মুখে। চলুন জেনে নেয়া যাক তাদের সফলতার গল্প। ৩১তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে নিয়োগ পান নাসরিন। বর্তমানে তিনি কঙ্গোতে শান্তিরক্ষী মিশনে কর্মরত আছেন। ছোটবোন শিরিন

কাগজ কেনার টাকা নেই, রাস্তায় চলছে লেখাপড়া

করোনাভাইরাসের মহামারির কারণে অর্থাভাবে চরম বেকায়দায় পড়েছে অনেকেই। অর্থের অভাবে কাগজ কিনতে না পারলেও ভারতের প্রত্যন্ত একটি গ্রামের ছেলেমেয়েরা রাস্তায় লেখাপড়া করছে। খবর সংবাদ প্রতিদিনের। জানা গেছে, ভারতের মধ্যপ্রদেশের বেতুল জেলার সিমোরি গ্রামে রাস্তায় লেখাপড়া করছে শিশুরা। রাস্তাতেই চক দিয়ে কেউ নামতা শিখছে। আবার রাস্তায় লিখে যোগ-বিয়োগ শিখছে। সেখানে ইংরেজি শিখতেও দেখা গেছে শিশুদের। স্থানীয় এনজিওর সদস্য মমতা গোহার বলেন, আমরা ওই ছোট শিশুদের বিনামূল্যে সাদা এবং রঙিন চক দিয়েছি। এই অভিনব পদ্ধতি গোটা এলাকাতেই

চাচা শ্বশুরের সাথে উধাও এক স’ন্তানের জননী, কেন চলে গেলেন বিস্তারিত পড়ে নিন…

বগুড়ার শি’বগঞ্জে খালাতো ভাইয়ের সাথে প্রে’ম করে বিয়ের পাঁচ বছরের মা’থায় প্রতিবেশী চাচা শ্বশুরের সাথে উধাও এক স’ন্তানের জননী গৃহবধূ। এ ব্যাপারে ওই গৃহবধূর স্বা’মী থা’নায় সাধারণ ডায়রি ও পৃথক অ’ভিযোগ দা’য়ের করা হয়েছেন। শি’বগঞ্জ উপজে’লার কিচক ইউনিয়নের ধোপাখুর (পালিহার) গ্রামে ঘ’টনাটি ঘটেছে। থা’না ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ধোপাখুর (পালিহার) গ্রামের আতোয়ার হোসেনের ছে’লে মাজেদুর রহমান। পেশায় সিএনজিচালক। প্রে’মের সম্প’র্ক গড়ে ওঠে তারই আপন খালাতো বোন বৃষ্টি আক্তারের (আরর্জু) সাথে। বৃষ্টি একই উপজে’লার বুড়িগঞ্জ

সন্ধ্যা ঘনিয়ে এলেই সাজগোজ করে বের হন বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া তরুণী

সোহানা আফরিন। লম্বা, শ্যামবর্ণের আকর্ষণীয় তরুণী। সন্ধ্যা ঘনিয়ে এলেই সাজগোজ করে বাসা থেকে বের হন। একেক দিন একেক রকম সাজে। কখনও টিশার্ট-প্যান্ট, কখনও শাড়ি। বাতাসে ছড়িয়ে যায় দামী পারফিউমের ঘ্রাণ। গাড়িতে ওঠার আগে-পরে মানুষের দৃষ্টি কেড়ে নেন তিনি। অবশ্য সন্ধ্যা ছাড়া দিনের বেলাতেও কখনও কখনও এভাবেই বের হতে হয়। দুই-তিন ঘন্টার মধ্যে আবার ফেরেন বাসায়। মাঝে মধ্যে রাত শেষে সকালে ফেরা হয় তার। আফরিন বলেন, এটি পার্ট টাইম জব। এই জব বদলে দিয়েছে সোহানা আফরিনের